Jump to content
IslamicTeachings.org

ই-সিগারেটও ক্ষতিকর


MAHMUD
 Share

Recommended Posts

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা জানিয়েছেন, ইলেকট্রনিক সিগারেটও স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। সাধারণ সিগারেটের মতোই এর নিকোটিনও সরাসরি ফুসফুসে চলে যায়। খবর গিজম্যাগ-এর।

ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া, রিভারসাইডের গবেষকরা জানিয়েছেন, ইলেকট্রনিক সিগারেট তামাক পোড়ানো ছাড়াই নিকোটিন গ্রহণের সুযোগ দেয়। এটি তৈরি হয় একটি ব্যাটারি, একটি অ্যাটোমাইজার এবং প্রোপিলিন গ্লাইকলসহ নিকোটিনের একটি কার্টিজ ব্যবহার করে।

 

গবেষকরা জানিয়েছেন, যখন কেউ ই-সিগারেট পান করে, তখন একটি সেন্সর ব্যাটারিকে সক্রিয় করে এবং ডিভাইসটির মাথার দিকে লাল হয়ে ধোঁয়া তৈরি করে এবং অ্যাটোমাইজারকে গরম করে তোলে। এই পদ্ধতিটি প্রোপিলিন গ্লাইকলকে বাষ্প করে তোলে। এই সিগারেটে টান দিলে তখন নিকোটিন এর স্বাদ পাওয়া যায় এবং তা সাধারণ সিগারেটের মতোই ফুসফুসে চলে যায়। সাধারণ সিগারেটের পাশাপাশি এখন এরকম ইলেকট্রনিক সিগারেটেরও চল বাড়ছে।

 

ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া, রিভারসাইডের সেল বায়োলজি অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সের গবেষক প্রু ট্যালবট জানিয়েছেন, ইলেকট্রনিক এই সিগারেট বিষয়ে তেমন কোনো গবেষণা করা হয়নি এমনকি এর ক্ষতিকর দিক কতোটুকু সেটিও বের করা হয়নি। ই-সিগারেটে ব্যবহৃত রাসায়নিকের বিষাক্ততার বিষয়টিও জানানো হয়নি। এমনকি এই বিষয়ে ঠিকমতো তথ্যও জানানো হয়নি।

 

গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে টোব্যাকো কন্ট্রোল সাময়িকীতে।

 

গবেষকরা জানিয়েছেন, ইলেকট্রনিক সিগারেটও মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করতে পারে। তাই স্বাস্থ্যসচেতনতা এবং নিরাপত্তার বিষয়টির কথা বিবেচনায় ইলেকট্রনিক সিগারেট বাজার থেকে তুলে নেয়া উচিত।

 

সূত্র: বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর

Link to comment
Share on other sites

Asalamu'alaikum

 

 

yap sis , u must learn Bangla :P

 

 

summary of the post:

 

Recently, electronic cigarettes – battery-operated devices that have the look, feel, and even taste of a normal cigarette – have been touted as an allegedly “safe” alternative to traditional cigarettes. Hundreds of thousands of Americans looking for their nicotine fix have now taken up smoking these “e-cigarettes” based upon the belief that these devices pose no threat to their health. Unfortunately, there are serious questions regarding the dangers of electronic cigarettes that remain unanswered.

 

 

 

The appeal of electronic cigarettes stems in large part from the fact that smokers inhale liquid nicotine, and exhale a mist of vapor, thus replicating the experience of smoking traditional cigarettes but without also ingesting the tar or tobacco that are present in traditional cigarettes. According to a recent New York Times article, what many e-cigarette users don’t know is that along with liquid nicotine they are also inhaling propylene glycol, a liquid that is used in anti-freeze solutions and in brake and hydraulic fluids. The material data safety sheet for propylene glycol states that chronic exposure of that substance may cause “reproductive and fetal effects,” “central nervous system depression,” damage to cell membranes, and possible seizures. Moreover, there appears to be no evidence that inhalation of propylene glycol over a prolonged period of time is safe, and there are no independent scientific studies demonstrating that electronic cigarettes can help people to stop smoking.

 

 

 

Electronic cigarettes are already banned in Australia and Hong Kong due to safety concerns. And the Food and Drug Administration (“FDA”) has refused entry of shipments of electronic cigarettes coming into the U.S. “These appear to be unapproved drug device products,” said Karen Riley, a spokeswoman for the FDA, “and as unapproved products they can’t enter the United States."

 

 

 

If you have purchased electronic cigarettes, or have been injured by using “e-cigarettes,” please contact us to discuss your legal options.

Link to comment
Share on other sites

Create an account or sign in to comment

You need to be a member in order to leave a comment

Create an account

Sign up for a new account in our community. It's easy!

Register a new account

Sign in

Already have an account? Sign in here.

Sign In Now
 Share

×
×
  • Create New...